হেলফিট খেলে কি ক্ষতি হয় – হেলফিট ট্যাবলেট এর উপকারিতা

আসসালামুয়ালাইকুম প্রিয় বুন্ধুরা হেলফিট খেলে কি ক্ষতি হয় তা  নিয়ে অনেকের জানার আগ্রহ  এর শেষ নাই। আজকে এর ক্ষতিকর দিক এবং উপকার এর দিক গুলা নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা করা হবে।যারা এই বিষয় নিয়ে ভাবছেন আজকের আর্টিকেল শুধু তাদের জন্য।

হেলফিট খেলে কি ক্ষতি হয়

অনেকের প্রশ্ন  হেলফিট খেলে কি ক্ষতি হয়?হেলফিট ট্যাবলেট এর উপকারিতা কি?এই নিয়ে যদি আপনি ভেবে থাকেন তাহলে আজকের এই আর্টিকেল তি শুধু আপনার জন্য ।তাই এই সকল প্রশ্নের উত্তর পেতে হলে এই আর্টিকেল টি সম্পূর্ণ পরতে হবে। তাই অনুরোধ থাকবে সবাই মনোযোগ সহকারে আর্টিকেল টি পরবেন।

সূচিপত্রঃ হেলফিট খেলে কি ক্ষতি হয় – হেলফিট ট্যাবলেট এর উপকারিতা

  • হেলফিট খেলে কি ক্ষতি হয়
  • হেলফিট ট্যাবলেট এর উপকারিতা
  • হেলফিট খেলে কি মোটা হয়
  • হেলফিট ট্যাবলেট খাওয়ার নিয়ম

হেলফিট খেলে কি ক্ষতি হয়

হেলফিট ঔষধটি খেলে অধিক মাত্রাই আপনার খাবারের রুচি বেড়ে যাবে। আনুমানিক ১০ থেকে ২০ দিন খেলে আপনি মোটা হয়ে যাবেন। অনেকে এইরকম টাই বলে  থাকেন। তবে ডাক্তার এর মতে এটি সেবনের ফলে আপনার অনেক ক্ষতি হবে এবং আপনার সাস্থ্যের ও। কারন এই ট্যাবলেট এ রয়েছে স্টেরয়েড তাই ঔষধ টি স্টেরয়েড  মিশ্রিত ঔষধ। এই টি সেবনে আপনার লিভার, কিডনি,ও স্কিনের বিভিন্না সমস্যা দেখা দিবে। 

এমনকি রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা কমে যাবে তাইএটা থেকে দূরে থাকাই ভাল। যেহেতু এটি খেলে ক্ষতি হই তাই না খাওয়া ভাল ।আবার অনেকে তারাতারি মোটা হওয়ার জন্য এই ট্যাবলেট টি সেবন করে থেকে ।এটি সুম্পুরন ক্ষতি করে আপনার শরীর এ।এই টির আসলে কোন প্রতিসধক এখন বের হই নি।তাই এটি সেবন না করাই ভাল।আর অধিক মোটা হওয়ার লোভে সেবন করা থেকে দূরে থাকা সবথেকে ভাল।

হেলফিট ট্যাবলেট এর উপকারিতা

হেলফিট ট্যাবলেট এর উপকারিতা আছে । এগুলো কি কি আপনারা যদি না জানেন তাহলে আপনাকে এই পোস্টটি মনোযোগ দিয়ে পড়তে হবে ।এই আর্টিকেল এ আলোচনা করা হবে হেলফিট ট্যাবলেট এর উপকারিতা কি কি। হেলফিট ট্যাবলেট এর উপকারিতা সম্পর্কে  কিছু জানতে চাইলে এই আর্টিকেল টি মনোযোগ সহকারে পড়ূন। তাহলে চলুন আর দেরি না করে  বিস্তারিত জেনে নেওয়া যাক হেলফিট ট্যাবলেট এর উপকারিতা কি কি।

আমরা জানি হেলফিট ট্যাবলেটটি হলো মূলত মোটা হওয়ার একটি ইউনানি ওষুধ। আপনি যদি ট্যাবলেটটি খেয়ে থাকেন তাহলে আপনি ১০ থেকে ২০ দিনের মধ্যে মোটা হয়ে যাবেন।হেলফিট ট্যাবলেটটি শুধু তারাই খেতে পারবেন যাদের রুচির অনেক অভাব রয়েছে । এই ট্যাবলেট টি খেলে আপনার রুচি বাড়বে যার ফলে বেশি বেশি খেতে পারবেন এবং অধিক মোটা হতে পারবেন।

আরো পড়ুনঃ পুদিনা পাতার ক্ষতিকর দিক

ডাক্তার মুলুত এই হেলফিট ট্যাবলেটটি পেট ফাঁপা বদ হজম রুচির অভাব পরিপাক তন্ত্রের দুর্বলতা ও রক্তস্বল্পতায় রুগিদের জন্য দিয়ে থাকে এটি তাদের জন্য বেশি  কার্যকরি । এই ট্যাবলেট সেবনে উপকার যেমন  আছে অপকার বেশি রয়েছে সে বিষয়গুলো আপনি উপরে জানতে পারছেন।আসা করি আজকের আর্টিকেল টি আপনাদের উপকারে আসছে এবং যারা হেলফিট ট্যাবলেট এর উপকারিতা সম্পর্কে জানতে চাইছেন তারা উত্তর পেয়ে যাবেন।

হেলফিট খেলে কি মোটা হয়

Hellfit ট্যাবলেট একটি খাদ্যতালিকাগত সম্পূরক হিসাবে বাজারজাত করা হয় যা শক্তির মাত্রা বৃদ্ধি, বিপাক বৃদ্ধি এবং সামগ্রিক সুস্থতার উন্নতির জন্য তৈরি করা হয়েছে। বরতমান এ এগুলিতে প্রায়শই ভিটামিন, খনিজ পদার্থ, ভেষজ নির্যাস এবং ক্যাফিনের মতো যৌগগুলির সংমিশ্রণ থাকে।এটি সেবনে সতর্ক থাকা উচিত।সেবন করার পূর্বে অবশই লেবেল পরে নিবেন। যাদের শরীর চিকন তাদের চিকিৎসক এই ট্যাবলেট খেতে বলেন।
কিন্তু এটি সেবনে মোটা হওার সাথে সাস্থ ঝুকি থাকে। এই ট্যাবলেট খেলে দ্রুত মোটা হয়ে যাবেন। যেটা খতি।তাই এই ট্যাবলেট এর থেকে খাদ্য তালিকাই পুস্তিকর খাবার রাখা জরুরি। এটি সেবনে মোটা সহ ত্বক ফর্সা হয়। যার ফলে ত্বক ক্ষতি হই। ব্রন বের হয়।তক নষ্ট হয়ে জাই।তাই এটি থেকে দূরে থাকা ভাল। এটা মুলত আপনার খুদা বারাই দিবে।জত খাবেন ততই আপনার চর্বি বারবে তারপর আপনি মোটা হয়ে জাবেন।
এই টি ত্বক সহ শরীররে বিভিন্ন ক্ষতি করে তাই এটি সেবন না করাই ভাল।এর ভাল গুন এর থেকে খারাপ গুন এ বেশি লক্ষ্য করা যাই।তাই যারা মোটা হতে চান তারা এই টি সেবন করতে পারেন তবে চিকিৎসক এর পরামর্শ নিয়ে তারপর সেবন করবেন। আসা করি আজকের আর্টিকেল টি আপনাদের উপকারে আসছে এবং যারা হেলফিট খেলে কি মোটা হয় তাদের উপকার এ আসবে।

হেলফিট ট্যাবলেট খাওয়ার নিয়ম

সব জিনিস এর নিয়ম আছে তেমন হেলফিট ট্যাবলেট খাওয়ার নিয়ম ও আছে।এখন আমরা এটি খাওার নিয়ম সম্পর্কে জানব,।তাই মনোযোগ সহকারে এই পোস্ট টি পুরুন।আমরা আগেই জানলাম যে ,এইটি ইউনানি তেব্লেত।তাই অনেকে এইটি খেতে চান না।অনেকে মনে করেন যে এইটির মান কম।কিন্তু জানলে অবাক হবেন যে সাধারন ট্যাবলেট এর থেকে ইউনানি ট্যাবলেট এর কাজ ভাল হয়।

আরো পড়ুনঃ ২১ সপ্তাহে বাচ্চার নড়াচড়া কেমন হয়

কিন্তু কাজ হতে সময় বেশি লাগে।এই ট্যাবলেট আপনি গুরা করে পানির সাথে মিশাই খাইতে পারেন।সকালে এবং রাত এ আপনে সেবন করতে পারেন।তবে এটি খালি পেট বেশি কাজ করে।দিন রাত একই ভাবে সেবন করুন.১৫ দিন পর এর ফল পাবেন।তবে যারা মোটা হতে চান ঠিক তারাই খাবেন।

এটি যেকন হারবাল এর দোকানে পাবেন।দাম সীমিত ।অবশই লেবেল পরে নিবেন খাওার আগে।আসা করি আজকের আর্টিকেল টি আপনাদের উপকারে আসছে এবং যারা ট্যাবলেট খাওার নিয়ম সম্পর্কে জানতে চান তাদের উপকার এ আসবে।

Leave a Comment