prolong 30 এর কাজ কি – prolong 30 খাওয়ার নিয়ম

আসসালামুয়ালাইকুম প্রিয় বন্ধুরা prolong 30 এর কাজ কি-prolong 30 খাওয়ার নিয়ম এই গুরুত্বপূর্ণ আর্টিকেলটি আপনার জন্য আমাদের মধ্যে অনেকে আছে যারা এ বিষয়টি সম্পর্কে জানেনা।আমাদের আজকের এই আর্টিকেলের মূল আলোচ্য বিষয় হলো prolong 30 এর কাজ কি-prolong 30 খাওয়ার নিয়ম সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা।

prolong 30 এর কাজ কি
আপনার মূল্যবান সময় নষ্ট না করে শুরু করা যাক আমাদের আলোচনা আমাদের আলোচনার মূল আলোচ্য বিষয় prolong 30 এর কাজ কি-prolong 30 খাওয়ার নিয়ম দাম কত ইত্যাদি সম্পর্কে বিস্তারিত ।আমার আজকের এই পোস্টটি শেষ পর্যন্ত পড়লে আপনি জানতে পারবেন prolong 30 এর কাজ কি-prolong 30 খাওয়ার নিয়ম সম্পর্কে সম্পূর্ণ বিস্তারিত তাই শেষ পর্যন্ত পড়ার অনুরোধ রইলো।

সূচিপত্রঃ prolong 30 এর কাজ কি – prolong 30 খাওয়ার নিয়ম

  • prolong 30 এর কাজ কি
  • prolong 30 খাওয়ার নিয়ম
  • Prolong 60 এর কাজ কি
  • Prolong 60 খাওয়ার নিয়ম
  • Prolong 30 এর দাম কত

prolong 30 এর কাজ কি

মানুষের যে সমস্যা আছে এবং এর সমাধানও আছে। হোক সেই সমস্যা বিয়ের আগে অথবা বিয়ের পরে। বিয়ের আগেও এ ধরনের সমস্যা না দেখা দিলেও এ ধরনের সমস্যা বের করে দেখাতে পারে। যৌন সমস্যার জন্য prolong 30 ট্যাবলেটটি খুবই গুরুত্বপূর্ণ এবং কার্যকরী। যারা শারীরিক চাহিদা মেটাতে গিয়ে অল্পতে বীর্যপাত ঘটিয়ে ফেলেন তাদের জন্য prolong 30 কার্যকরী ট্যাবলেট। এই ট্যাবলেট আপনি আপনার আগের শক্তি ফিরে পাবেন। যাদের অল্পতে বীর্যপাত ঘটে যায় তারা এই ট্যাবলেটটি খেতে পারেন এবং ডাক্তারের পরামর্শ নিয়ে তারপরে খাবেন ।
এই ট্যাবলেট খাওয়ার ফলে আপনি আপনার পুরনো যৌবন শক্তি ফিরে পাবেন এবং আগের তুলনায় আপনার কনফিডেন্টস লেবেলটি বেড়ে যাবে এবং দীর্ঘ সময় সহবাস করতে পারবেন । দ্রুত বীর্যপাত রোধ করতে ডাক্তারের বিভিন্ন সময় ব্যায়াম করার পরামর্শ দিয়ে থাকেন এবং সেই সাথে এই ট্যাবলেটটি ও দিয়ে থাকেন । তবে এই ওষুধটি সেবনে ডাক্তারের শরণাপন্ন হবেন এবং সঠিক মাত্রা সম্পর্কে জেনে নেবেন তারপর করতে পারেন।

prolong 30 খাওয়ার নিয়ম

এতক্ষণ আমরা জানলাম prolong 30 এর কাজ কি এখন আমরা জানবো এটি খাওয়ার নিয়ম সম্পর্কে বিস্তারিত। এই ট্যাবলেট খাওয়ার কোন বাধ্যবাধকতা নিয়ম নেই । সাধারণত যাদের সময় লাগেই দ্রুত বীর্যপাত ঘটে যায় তাদের জন্য এই ট্যাবলেটটি প্রযোজ্য এবং যারা শারীরিকভাবে অক্ষম খেতে পারেন। একটু পরে জেনেছি এই ট্যাবলেট সম্পর্কে নানা খুঁটিনাটি। এই ট্যাবলেটটি খাওয়ার একটু নিয়ম আছে সেটি হল সহবাসের দুই থেকে তিন ঘন্টা পূর্বে এই একটি ট্যাবলেট খেতে হবে।
তবে ১৮ থেকে ৬৪ বছর বয়স সীমার মধ্যে যাদের বয়স আছে তারা খেতে পারেন ।এরকম অথবা এর বেশি বয়স হলে খাবেন। এই ওষুধটি মূলত যৌন শক্তিকে বৃদ্ধি করে এবং দ্রুত বীর্যপাত ঘটাতে রোধ করে। তবে মনে রাখতে হবে এই ওষুধটি সম্পর্কে সঠিকভাবে ডাক্তারের পরামর্শ নিয়ে এবং এই ওষুধ সম্পর্কে যাবতীয় খুঁটিনাটি এবং সঠিক মাত্রা ইত্যাদি জেনে তারপরে সেবন করবেন।

Prolong 60 এর কাজ কি

আমরা একটু উপরে এই ওষুধ এর কম পাওয়ার সম্পর্কে জেনেছি এখন আমরা জানতে যাচ্ছি Prolong 60 এর কাজ সম্পর্কে। কাজের কথা আসলেই দুটো ওষুধেরই ট্যাবলেটেরি প্রাইস সেম কথা। এই ট্যাবলেটটি মূলত অকাল বীর্যপাত রোধের জন্য। অনেকেই আছেন যারা সময় এর আগেই বীর্যপাত ঘটিয়ে ফেলেন সাধারণত তাদেরকে অকাল বীর্যপাত বলা হয়। আপনি যেটা যাচ্ছেন সেটা হচ্ছে না আপনার চাওয়ার মত মনের ইচ্ছা পূরণ হচ্ছে না।
তাই ডাক্তাররা সাধারণত শারীরিক ব্যায়ামের সাথে এই ওষুধটি লিখে দেন এবং এটি সেবন করতে বলেন এটি খাওয়ার নিয়ম একই এটি খাইতে হবে সহবাস করা এক থেকে তিন ঘন্টা আগে এবং বয়সসীমা একই অর্থাৎ ১৮ থেকে ৬৪ বছর বয়স পর্যন্ত। এক থেকে তিন ঘন্টা খাবার ফলে আপনার শরীরে এনার্জি চলে আসবে এবং দ্রুত বীর্যপাতে বাধা দিব।
 তবে এটি পাওয়ার একটু বেশি সাধারণত  30 mg তে যাদের বীর্যপাত  দ্রুত ঘটা রোধ হয় না তাদের জন্য 60 mg  প্রযোজ্য। এদের মাত্রা একটু বেশি হওয়ার কারণে এর কিছু পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া রয়েছে। যেমন এটি খেলে আপনার বমি বমি ভাব হতে পারে মাথা ঘুরতে পারে শরীরে রক্তস্বল্পতা দেখা দিতে পারে এছাড়াও এছাড়াও কাপড় নেই ক্লান্তি অনুভব করতে পারেন।

Prolong 60 খাওয়ার নিয়ম 

এই ট্যাবলেটটি prolong 30 এর মতই খাওয়ার নিয়ম সাধারণত সহবাসের এক থেকে তিন ঘন্টা আগেএটি খেতে হয় । সহবাসের আগে খাওয়ার প্রধান কারণ হলো এই ট্যাবলেট খাওয়ার ফলে আপনার যৌন শক্তি বেড়ে যাবে এবং দীর্ঘ সময় আপনি সহবাস করতে পারবেন এবং আপনার দ্রুত বীর্যপাত ঘটার সমস্যাটা সমাধান হয়ে যাবে।এটির খাওয়ার কোন বাধ্যবাধকতা নিয়ম নেই।
আপনি সাধারণ ট্যাবলেট যেভাবে খান সেভাবে ডাক্তারের পরামর্শ অনুযায়ী খেতে পারেন । আপনার সমস্যার সমাধান হয়ে গেলে আর খাওয়ার প্রয়োজন নাই। তবে দ্রুত বীর্যপাত ঘটার মোকাবেলা করতে পারে শারীরিক ব্যায়াম। এই ট্যাবলেট এর মাত্রা অতিরিক্ত বেশি । ক্লান্তি রক্তশূন্যতা ইত্যাদি নানা জটিলতা রোগে ভুগতে পারেন। এছাড়াও আপনার মাথা ঘোরা পা ঝিমঝিম করা ইত্যাদি সবার নানা সমস্যা হতে পারে।
তাই এই ওষুধটি খাওয়ার পর অবশ্যই পুষ্টিকর খাবার খেতে হবে বিশেষ করে 300 থেকে 500 ক্যালোরি খাবার খেতে হবে প্রতিদিন এবং খাবার তালিকায় ছোট মাছ কলিজা ডিম দুধ মাখন দই ইত্যাদি রাখতে পারেন । এছাড়াও ইসবগুলের দই এর সাথে মিশে খেতে পারেন আপনার সমস্যাটা সমাধান হয়ে যাবে। এই ওষুধটি একবার খেলে সারাদিনে আর খাওয়া লাগবে না । অর্থাৎ আপনি যদি এই ট্যাবলেটটি দিনে একবার খান তাহলে আপনি এই ট্যাবলেট এর কার্যকারিতা সময় 24 ঘন্টা ।

Prolong 30 এর দাম কত

এই ওষুধটির মূল্য প্রতি পিস ৩০ টাকা করে । ওষুধটি আপনারা যে কোন ফার্মেসি অথবা অনলাইন শপের মাধ্যমে কিনতে পারেন তবে অবশ্যই ডাক্তারের পরামর্শ নিয়ে এবং সঠিক মাত্রা জেনে সেবন করবেন।

Leave a Comment