বাসর রাতে স্বামীকে খুশি করার উপায়

প্রিয় পাঠক আপনাদের অনেকের জানা নেই বাসর রাতে স্বামীকে খুশি করার উপায় সম্পর্কে বিস্তারিত। তাই আপনার ও যদি এমন প্রশ্ন থাকে তাহলে আমার আজকের এই আর্টিকেলটি মন দিয়ে পড়ুন। কেননা আমার আজকের এই আর্টিকেল এর মূল বিষয় হলো বাসর রাতে স্বামীকে খুশি করার উপায় নিয়ে আমার এই বিস্তারিত আলোচনা। তো আপনার মূল্যবান সময় নষ্ট না করে চলুন শুরু করা যাক বাসর রাতে স্বামীকে খুশি করার উপায় সেই সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা।

বাসর রাতে স্বামীকে খুশি করার উপায়

আমার এই আর্টিকেলটি শেষ পর্যন্ত পড়লে আপনি আরো ভালো করে জানতে পারবেন কখন বাসর রাতে স্বামীকে খুশি করার উপায় সেই সম্পর্কে বিস্তারিত। 

পেজ সূচিপত্রঃ বাসর রাতে স্বামীকে খুশি করার উপায়

  •  স্বামীকে বিছানায় খুশি করার উপায়
  • বাসর রাতে স্বামীকে খুশি করার উপায়
  • স্বামীকে কিভাবে আদর করতে হয়
  • শেষ কথা-বাসর রাতে স্বামীকে খুশি করার উপায় 

স্বামীকে বিছানায় খুশি করার উপায়

বর্তমানে স্বামীকে বিছানায় খুশি করার উপায় সম্পর্কে অনেকেই জানতে চাই। সকল স্ত্রী চাই যেন তার স্বামী তার ওপর বেশি আকৃষ্ট থাকে এছাড়াও প্রত্যেক স্ত্রী চায় যেন তার স্বামী তাকে ছাড়া অন্য কাউকে ভালো না বাসে। তবে প্রত্যেক স্ত্রীর অল্প সামান্য কিছু উপায় খেয়াল রাখলে স্বামীর দৃষ্টি আকর্ষণ করতে পারবে। নিচে এর ধাপ গুলো লেখা হলোঃ
  • আপনার স্বামীর সৌন্দর্যে প্রশংসা করুন। বলুন যেন তাকে অনেক সুন্দর লাগছে অথবা তোমাকে এই পোশাকে অনেক সুন্দর মানিয়েছে।
  • অবশ্যই আপনি সবসময় পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন থাকুন। এছাড়া ও সুগন্ধি ব্যবহার করে আপনার স্বামীর কাছে যান। প্রত্যেক স্বামী তার সঙ্গে পরিপাটি ও সুগন্ধি ভালোবাসেন। অর্থাৎ এগুলো তাকে তার সঙ্গীর প্রতি আকৃষ্ট করে।
  • স্বামীকে বিভিন্ন রকম প্রশ্ন করুন, বিশেষ করে তার সম্পর্কে। কারণ প্রত্যেক স্বামী সব সময় তার ব্যাপারে আলোচনা করতে পছন্দ করে। তবে অবশ্যই আপনি আপনার স্বামীর ভালোলাগা ভালোবাসা সম্পর্কে জানুন।
  • আপনার স্বামী যদি কোন কথা বলে তবে সেই কথা তার চোখের দিকে তাকিয়ে শুনুন এবং কথা বলুন। অবশ্যই কথা বলার সময় এদিক ওদিক তাকিয়ে কথা বলবেন না। বরং আপনি তাকে আপনার চোখে ভাষা বোঝানোর চেষ্টা করুন যে আপনি তাকে কতটা ভালোবাসেন।
  • আপনার স্বামীর বন্ধুদের সাথে সামাজিক আচরণ করুন। তাদেরকে নিজের মত আপন করে নিন।
বাসর রাতে স্বামীকে খুশি করার উপায়
বাসর রাত প্রতিটা নারীর জীবনে একবার আসে। তাই তাদের এই রাত নিয়ে অনেক চিন্তায় থাকে। এই যে তার স্বামীকে কিভাবে সে খুশি রাখবে। এই রাতের যে সকল আনন্দ পায় নারী কোনো দিন তা ভুলতে পারে না। তাই আপনি যদি আপনার স্বামী কে বাসর রাতে খুশি করতে চান তাহলে বেশ কিছু দায়িত্ব রয়েছে স্বামীকে খুশি করা। নিচে এর ধাপ গুলো দেওয়া হলোঃ
  1. সর্বপ্রথম আপনাকে স্বামীর সঙ্গে দুই রাকাত নফল নামাজ আদায় করতে হবে।
  2. স্বামীর ভালো লাগা খারাপ লাগা এইসব সম্পর্কে জানার চেষ্টা করতে হবে।
  3. বাসর রাতে আপনার স্বামী যদি কোন গিফট দেয় তবে সেটা খুশি মানে গ্রহণ করতে হবে।
  4. আপনার স্বামীর সঙ্গে ভালো ভাবে কথা বলুন এবং সৌজন্য মূলক আচরণ করুন।
  5. আপনার স্বামী যদি কোনো কথা বলে তবে তা মন যোগ সহকারে শুনে হাঁ সূচক বাক্য বলা।
  6. সর্বশেষে যৌন মিলনের সময় এমনভাবে সহবাস করুন যাতে সে মনে হয় বা খুব সহজে বুঝতে পারে যে এটা আপনার জীবনে প্রথম।
স্বামীকে কিভাবে আদর করতে হয়
আপনি আপনার স্বামীকে বিভিন্ন ভাবে আদর বা ভালো বাসা দিতে পারেন। আপনার স্বামীকে আপনি যেভাবে আদর করতে পারেন তা নিচে পর্যায়ক্রমে আলোচনা করা হলোঃ
  • স্বামীকে মাঝে মধ্যে উপহার বা গিফট দিতে হবে। স্বামীর জন্য খোলামেলা পোশাক পড়ুন এবং নিজের সৌন্দর্য ফুটিয়ে তুলুন।
  • কোন কোন দিন স্বামীর জন্য সুন্দর করে সেজে বসে থাকুন সাথে তার মেজাজ বোঝার চেষ্টা করুন।
  • আপনার স্বামীর পোশাক খুলার সময় তাকে সাহায্য করুন। আপনার পোশাক যেন সে খুলে দেয় এজন্য তাকে যৌনতার সুরে ডাকুন।
  • যৌন অক্ষমতা থেকে হেফাজত করে, সেক্স হরমোন বের করে তার লিঙ্গ কে দীর্ঘ সময় পর্যন্ত দৃঢ় ও মজবুত করে রাখে।
  • আপনার স্বামীকে আদর শুরু করুন। তার বিশেষ কিছু অংশে কে চমকে দিন এবং তাকে হট করে ছেড়ে দিন। এরপর আপনার স্বামী এই উত্তেজনা বসে কিছুটা প্রশমিত হয়ে যাবে যা তার দ্রুত বীর্যপাত কমিয়ে দিবে। 
  • সব সময় স্বামীর যৌন পার্ফমেন্স কে প্রশংসা করুন এবং সাথে তার স্পেশাল জিনিসটাকে নিজের প্রিয় জিনিস বানিয়ে নিন। তবে অবশ্যই এটা আপনার স্বামীর কানে কানে বলতে ভুলে যাবেন না।আপনার স্বামী যদি কখনো কনডম ব্যবহার করতে চাই তাহলে আপনি সেই প্যাকেটটি খুলে আপনার স্বামী লিঙ্গে পরিয়ে দিন।
  • আপনার স্বামীর বীর্যপাতের সময় তাকে শক্ত করে জড়িয়ে ধরুন।
  • অবশ্যই বিভিন্ন পজিশন নিয়ে যৌন মিলন করুন। এতে আপনার স্বামী অনেক আনন্দ পাবে।
  • যদি কখনো আপনার বীর্যপাত না হয় তাহলে মন খারাপ করবেন না বরং দ্বিতীয়বার চেষ্টা করুন। তাতে যদি না হয় তাহলে ডিম দুধ খেয়ে নিন।
  • আর সর্বশেষে এটা মনে রাখবেন স্ত্রী হলো স্বামীর শস্য ক্ষেত্র। তাই আপনি খুব যত্ন সহকারে আবাদ করুন। এতে করে আপনি ভালো ফলাফল পাবেন।

শেষ কথা:বাসর রাতে স্বামীকে খুশি করার উপায় 

প্রিয় পাঠক আপনারা এতক্ষণ পড়ছিলেন বাসর রাতে স্বামীকে খুশি করার উপায় সম্পর্কে বিস্তারিত। আশা করি আমার আজকের এই পোষ্টটি পড়ে আপনার উপকারে আসবে। আমার এই ওয়েব সাইট এ আপনাদের জন্য প্রতিনিয়ত নতুন নতুন তথ্য নিয়ে বাংলা আর্টিকেল লিখে আসছি।
আমার এই পোষ্টটি যদি আপনার ভালো লাগে তাহলে আপনার বন্ধুর কাছে শেয়ার করতে পারেন। আর যদি নতুন কোনো বিষয়ে তথ্য জানতে চান তাহলে আমাদের কমেন্ট করে জানাতে পারেন। এতক্ষণ আমার এই পোষ্টটি পড়ার জন্য আপনাকে ধন্যবান।

Leave a Comment